,



হিন্দু স্বেচ্ছাসেবীদের পাহারায়, মুসলমানদের ঈদের জামাত আদায় !!!

Spread the love

ধর্ম যার যার উৎসব সবার । আসলেও ধর্ম,বর্ন নির্বিশেষে আমরা সবাই মানুষ । তা জন কয়েক না মানতে পারলেও বাকি’রা মানেন । আর তাইতো মহান আল্লাহ তা’লার সৃষ্টি এই সুন্দর পৃথিবীতে আজও মানুষ মানুষের বিপদে-আপদে যোগ হয়ে, একে অন্যের পাশে দাড়ায় ।

গত ঈদুল ফিতরে শোলাকিয়ার ঈদের জামাতে জঙ্গিদের হামলা হয়। আর এ নিয়ে মানুষের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে স্বাভাবিকভাবে। ঘটনাটি অন্যরকম শোনালেও সত্য যে তারা জঙ্গি আক্রমণ ঠেকাতে নিজ ইচ্ছায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে পাহারা দিচ্ছে। মুসল্লিরা যাতে নিরাপদে ও নির্ভয়ে ঈদের নামাজ আদায় করতে পারে তাই তারা এ উদ্যোগ নিয়েছে।

৬০ জন স্বেচ্ছাসেবক সকাল সাড়ে ছয়টা থেকে ঈদগাহের সামনে শায়েস্তানগর পয়েন্টে দায়িত্ব পালন করেন। আইনজীবী, ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, সাংবাদিক, জনপ্রতিনিধি ও ছাত্রসহ প্রায় সকল শ্রেণি-পেশার মানুষ ছিলেন ৬০ জনের এ স্বেচ্ছাসেবক দলে। আর তারা সবাই সনাতন ধর্মাবলম্বীর।

এই স্বেচ্ছাসেবক দলের একজন সদস্য অ্যাডভোকেট তুষার মোদক। তিনি পূজা উদযাপন পরিষদ জেলা শাখার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

স্বেচ্ছায় অন্য ধর্মের মানুষদের জন্য দায়িত্ব পালন সম্পর্কে তিনি বলেন, পূজা উদযাপনের জন্যও কোনোদিন সকালে ঘুম থেকে উঠিনি। কিন্তু ঈদের দিন সকাল সাড়ে ৬টায় হবিগঞ্জ কেন্দ্রীয় ঈদগাহে স্বেচ্ছাসেবকের দায়িত্ব পালন করতে সবার সঙ্গে মিলিত হয়েছি। কাজটা করে মনে অসম্ভব একটা প্রশান্তি পাচ্ছি। আমাদের মুসলমান ভাইরা যেন কোনো আতংক আর ভয় ছাড়া তাদের নামাজ আদায় করতে পারেন সেজন্য আমাদের এই ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা।

পূজা উদযাপন পরিষদের বিভাগীয় সম্পাদক শঙ্খ শুভ্র রায় বলেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রতি অটুট থাকার জন্য আমাদের এই উদ্যোগ। শান্তিপূর্ণভাবে আমাদের মুসলমান ভাইরা তাদের নামাজ আদায় করতে পেরেছেন এইজন্য খুব ভালো লাগছে।

অারো খবর