,



টীম দেবিদ্বার’র এর উদ্দ্যেগে রোহিঙ্গাদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরন।

Spread the love

কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার একদল তরুন উদ্দমী যুবকরা মানবতার সেবায় নিয়জিত থাকার ব্রত নিয়ে ‘টীম দেবিদ্বার’র নামক গঠিত একটি অরাজনৈতিক সংগঠন সাম্প্রতিক সময়ে যাত্রা শুরু করে। উক্ত সংগঠনের উদ্দ্যেগে গত শুক্রবার ও শনিবার দিনব্যাপী কক্সবাজার জেলার উখিয়া কুতুপালং মধুছড়া ক্যাম্পে রোহিঙ্গাদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।
জানা যায়, ওই সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা সমাজসেবক ও শিক্ষানুরাগী খছরুল আলম রিপন খাঁন, প্রবাসী মো.আক্তারুজ্জামান আক্তার, হাজী এনামুল হক, এমডি রুহুল আমিন সহ সকলের আর্থিক সহযোগীতা ও পরামর্শ নিয়ে ‘টীম দেবিদ্বার’র সভাপতি মোঃ আল আমিন আমানত নেতৃত্বে অসহায় রোহিঙ্গাদের মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতরন করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন টীম দেবিদ্বারের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আনোয়ার হোসাইন, সদস্য শ্যামল সরকার, মোঃ শরীফুল ইসলাম প্রমূখ।

উখিয়া থেকে ফিরে এসে রোহিঙ্গাদের জীবন যাপন নিয়ে টীম দেবিদ্বারের সদস্যরা উক্ত প্রতিবেদকে বলেন- আবারো ফিরে যেতে মন চায় উখিয়ার মধুছড়া পল্লীতে। বাস্তবতা নিজের চোখে না দেখলে বিশ্বাস করা যেতনা যে রোহিঙ্গা মুসলমানেরা এক মুটো খাবারের জন্য তারা কি ছটপট করে, শুধু ছোট ছোট কোমলমতি শিশু কিশোর ও বৃদ্ধ মানুষ অনেক কষ্টে কাগজের খুপরীর ভিতরে থেকে জীবন যাপন করছে। তাদের দুঃখ কিছুটা লাঘব করার জন্য প্রত্যেক পরিবারকে টাকা বিতরন করতে ছিলাম এক পর্যায়ে নিদৃষ্ট টাকা শেষ হয়ে গেলে তখন পাশের দাড়ানো রোহিঙ্গাদের আর্তনাদ দেখে নিজেদের খাবার ও গাড়ী ভারার টাকা গুলোও বিতরন করে দেই। টীম দেবিদ্বারের সদস্যরা যখন তাদের থেকে বিদায় নেয় তখন সবার চোখে মুখে কান্নার দৃশ্য ভেশে উঠে। তবুও তাদের নিকট থেকে বিদায় নিয়ে যখন দেবিদ্বারে উদ্দ্যেশ্যে আমরা রওনা হলাম তখন রাত ৯টা বাজে গাড়ীর টিকেট কাটা ও রাতের খাবার খাওয়া হয়নি। পকেটে হাত দিয়ে দেখি সামান্য টাকা সকলের বাস ভাড়া হবেনা তখন দুশ্চিন্তায় পরে যাই। পরে কোন রকম টাকা ম্যানেজ করে রওনা হন নিজস্ব গন্তব্যে।

অারো খবর